আসতে চলেছে Quantum computing

 এই পৃথিবীতে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করে চলেছেন অসংখ্য বিজ্ঞানীরা এবং তাদের মধ্যে অনেকেই সফল অনেকেই অসফল তারপরেও তারা চেষ্টা ছাড়ছেন না কারণ তারা যানেন চেষ্টার কোনো বিকল্প নেই

তেমনি অনেক চেষ্টার পর তৈরি হয়েছিল বিশ্বের প্রথম কম্পিউটার তখন সেটার আয়তন ছিলো অনেক বড় যা পরিবহনের কথা ভাবাও ছিল দূর্স্বপ্ন,
কিন্তু বর্তমান উন্নত পৃথিবীতে অনায়াসে লেপটপ কম্পিউটার একজায়গা থেকে অন্য জায়গায় পরিবহন করা যায়
সবাই চেষ্টা করে চলেছে প্রযুক্তিকে ছোট আয়তনে নিয়ে আসার বর্তমানে প্রায় সকল কম্পিউটার ই বেশি হলে একটা টেবিল এ ৩ভাগের এক ভাগ জায়গা নেয় কিন্তু এই আধুনিক বিশ্বে পুরো ঘর এর মতো কম্পিউটার ভাবা যায় জি হ্যা কথা বলছি

Quantum computing এই সম্পর্কে


এই কম্পিউটার আধুনিক বিশ্বের একটা অন্যতম আলোড়ন
এইটার আয়তন বর্তমানে সকল কম্পিউটার এর থেকে কয়েকগুন বেশি আর
এই কম্পিউটার এর ক্ষমতা নিয়ে আছে হাজারো প্রশ্ন
অনেকের মতে এই কম্পিউটারে তেমন ভালো কিছুই নেই,
আবার অনেকে ধারণা করেন হয়তো এটা টাইম মেশিন কিংবা রিসাইজেবল মেশিন এর কাজ করবে
অনেকের মনে এই ধারনা এসেছে এই ছবিগুলো দেখে,

এটা নিয়ে আরো অনেক অদ্ভুত সব প্রশ্ন রয়েছে তবে আসল সত্যিটা কি ?
এই বিষয়ে আমরা সামান্য ক্লিয়ার হতে পারি অন্যান্য বিজ্ঞানীদের মতামত থেকে
অন্যান্য বিজ্ঞানিদের মতে এই কম্পিউটারটা অন্য সব কম্পিউটারের মতোই হবে কিন্তু এটার কাজ করার ক্ষমতা হবে বর্তমান কম্পিউটারের থেকে কয়েক গুন বেশি আর এইটার মাধ্যমে পৃথিবী আর এক ধাপ এগিয়ে যাবে তবে এই কম্পিউটারের কাজ এর ধরন নিয়ে কেওই এখনো সম্পুর্ন নিশ্চিত নয় কারন এটা যারা তৈরি করছেন তারা এটা সম্পুর্ন গোপনে কাজ করছেন হয়তোবা এই পৃথিবীকে একটা চমৎকার আবিষ্কার দিয়ে চমকে দিতে।
এখন  শুধু এটার অফিশিয়ালি আপডেটের,আশায় থাকতে পারি ।
Previous Post
Next Post

post written by:

0 Comments: