বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে না টুইটার? এই সার্ভিসের জন্য গুনতে হবে মাসে ৪০০ টাকা

বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে না টুইটার? এই সার্ভিসের জন্য গুনতে হবে মাসে ৪০০ টাকা

সাম্প্রতিক নতুন ফিচার আনার জন্যে বারবার খবরে উঠে আসছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট টুইটার (Twitter)-এর নাম। এমনিতে মনের ভাব প্রকাশ করতে কিংবা কোনো বিষয়ে শীঘ্র আপডেট পেতে এই মাইক্রো ব্লগিং সাইটটির জুড়ি মেলা ভার! কিন্তু গত দু-তিন ধরে নেটদুনিয়ায় জল্পনা শুরু হয়েছে যে এবার থেকে আর বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে না টুইটার। সেক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি, এই জল্পনাটি সম্পূর্ণ ভ্রান্ত। আসলে টুইটার নয়, প্ল্যাটফর্মটির ‘সুপার ফলো’ (Super Follow) নামের একটি বিশেষ পরিষেবা ব্যবহার করতে ইউজারদের নির্দিষ্ট চার্জ দিতে হবে, যার মাধ্যমে বিশেষ কনটেন্ট ও হাই প্রোফাইল অ্যাকাউন্টের অ্যাক্সেস পাওয়া যাবে। অন্যদিকে এই নতুন পেইড সাবস্ক্রিপশন পরিষেবাটির সাহায্যে টুইটারের রেভেনিউ এবং কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের আয় বাড়বে।

Photo credit : https://www.pexels.com


যদিও, এই ফিচারটি ঠিক কবে লঞ্চ হবে এবং বাংলাদেশী ও ভারতীয় ইউজারদের জন্য এটি আদৌ রোলআউট হবে কিনা সেইবিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনো স্পষ্ট খবর পাওয়া যায়নি।

দ্য ভার্জের রিপোর্ট অনুসারে, সুপার ফলো পরিষেবার মাধ্যমে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা নিজেদের ফলোয়ারদের কাছ থেকে প্রতিমাসে ৪.৯৯ ডলার (বাংলাদেশী মূল্যে প্রায় ৪০০ টাকা) চার্জ করতে পারবেন। এতে কনটেন্ট ক্রিয়েটরের যেমন আয় হবে, তেমনি চার্জের টাকার কিছু অংশ নেবে টুইটার কর্তৃপক্ষও। যদিও সংস্থা অংশীদারিত্বের অ্যামাউন্ট হিসেবে কতটা ভাগ পাবে তা নির্দিষ্ট করে জানায়নি Twitter।

এদিকে Twitter একটি নতুন সেফটি মোডের ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, টুইটার ফেসবুকের গ্ৰুপ ফিচারের মত একটি নতুন ফিচার আনার ঘোষণা করেছে যা ‘কমিউনিটি’ নামে পরিচিত হবে। এই ফিচারের মাধ্যমে কোনো ইভেন্টের দরুন ইউজাররা গ্রুপ বানাতে পারবেন এবং তাতে সদস্য যুক্ত করতে পারবেন। তবে এই ফিচারটিও কবে লঞ্চ হবে তা জানা যায়নি।

Previous Post
Next Post

post written by: